ঢাকা, , ৯ কার্তিক ১৪২৮ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডব নিয়ে হেফাজতের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা করবে ছাত্রলীগ

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডব নিয়ে হেফাজতের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা করবে ছাত্রলীগ
ছাত্রলীগ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডব নিয়ে হেফাজতে ইসলাম মিথ্যাচার চালিয়েছে বলে অভিযোগ এনে নেতাদের প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে জেলা ছাত্রলীগ। ক্ষমা না চাইলে হেফাজতের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা করার হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার (৯ এপ্রিল) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই হুঁশিয়ারি দেন জেলা ছাত্রলীগ নেতারা। 


এর আগে গত ২৮ মার্চ ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও সংগঠনের সভাপতি রিয়াজ উদ্দিনকে মারধর করা হয়। এর প্রতিবাদে হেফাজতের সংবাদ বয়কটের ডাক দিয়েছিলো ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব।


এর মধ্যে গত সোমবার (৫ এপ্রিল) প্রেসক্লাবে হাজির হন হেফাজতের জেলা নেতারা। জেলা হেফাজতের সাধারণ সম্পাদক মোবারকুল্লাহ বলেন, ‘আমার যতটুকু জানা ও বিশ্বাস, আমাদের কেউ এসব ঘটনার সংগে জড়িত নয়। ভাঙচুরসহ সব ঘটনার জন্য আমরা নিন্দা জানাই। কে বা কারা করেছে, এসব তদন্তে বের হবে।’


হেফাজতের এই দাবির প্রেক্ষিতে সংবাদ সম্মেলনে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন শোভন বলেন, ‘হেফাজতে ইসলামের নেতারা ঘটনার শুরু থেকেই মিথ্যা বলে সাধারণ ধর্মপ্রাণ মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে। হেফাজতের কেউ তাণ্ডবে জড়িত নয় এমন দাবিকে নিছক মিথ্যাচার ও অপরাজনীতি বলে মনে করে ছাত্রলীগ।’

ছাত্রলীগের এই নেতা বলেন, ‘গত ২৬ থেকে ২৮ মার্চ তিন দিনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চালানো তাণ্ডবের ভিডিও ফুটেজ ও স্থিরচিত্র গণমাধ্যমে প্রচারিত ও প্রকাশিত হয়েছে। এসবের ভিডিও ফুটেজ ও ছবি আমাদের সবার কাছেই সংরক্ষিত আছে। ফেসবুকে সয়লাব হয়ে আছে তাদের ধ্বংসযজ্ঞের চিত্র। তাদের মিথ্যা বক্তব্য ধর্মপ্রাণ মানুষকে মর্মাহত করেছে।’

এসময় জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল হেফাজতের চালানো তাণ্ডবের ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানান।

এই প্রসংগে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন শোভন বাংলাভিশন ডিজিটালকে বলেন, ‘হেফাজত সংবাদ সম্মেলন করে হামলার দায় অস্বীকার করে আমাদের উপরে অভিযোগ এনেছে। কিন্তু সত্য হচ্ছে, কোথাও তাদের সংগে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ হয়নি। সামান্য ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়েছিল রাস্তার মধ্যে। এখন তারা মিথ্যা কথা বলছে। এর প্রতিবাদ জানাতেই আমরা প্রাথমিকভাবে আজকে সংবাদ সম্মেলন করেছি।’

রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলার হুঁশিয়ারি সম্পর্কে জানতে চাইলে এই ছাত্রলীগ নেতা বলেন, ‘আমরা উকিল নোটিশ পাঠাবো দ্রুত। এরপরে তারা ক্ষমা না চাইলে অবশ্যই মামলা করবো। হেফাজতকে এবার ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আর ছাড়া হবে না। ছাত্রলীগ প্রতিহত করবে।’



  • সর্বশেষ - রাজনীতি