ঢাকা, , ২৬ চৈত্র ১৪২৬ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে

আগের দিন বিয়ে, পরের দিনই হাসপাতালে

আগের দিন বিয়ে, পরের দিনই হাসপাতালে

ভারতীয় বাংলা সিনেমার দর্শকপ্রিয় অভিনেতা দীপঙ্কর দে। মেঘে মেঘে বেলা অনেক গড়িয়েছে। বয়স এখন ৭৫। জীবনের এই পর্যায়ে এসে বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন তিনি। কনে ৪৯ বছর বয়েসি অভিনেত্রী দোলন রায়। গতকাল বৃহস্পতিবার দক্ষিণ কলকাতার এক রেস্তোরাঁয় রেজিস্ট্রি বিয়ে করেন তারা। ভারতীয় একাধিক সংবাদমাধ্যম এ খবর প্রকাশ করেছে।

প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, বিয়ের অনুষ্ঠান ছিল একেবারেই ঘরোয়া। এ সময় ঘনিষ্ঠ স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন। এ তালিকায় রয়েছেন গুণী পরিচালক ব্রাত্য বসু, সৌমিত্র মিত্র, ধ্রুব কুণ্ডু, শীর্ষ সেন, অভিনেত্রী দোলনের ভাই দুর্গাশীষ প্রমুখ।

দীর্ঘ ২২ বছর লিভ-ইনে থাকার পর রেজিস্ট্রি বিয়ের মধ্য দিয়ে দোলনকে আইনি স্বীকৃতি দিলেন দীপঙ্কর দে। তারা যখন লিভ-ইন শুরু করেন, তখন এর এতটা প্রচলন ছিল না। দুজনের বয়সের ব্যবধানও অনেক। দীপঙ্কর তখন প্রতিষ্ঠিত অভিনেতা হলেও দোলন মাত্র ক্যারিয়ার শুরু করেছেন। যে কারণে প্রচণ্ড সমালোচনার মুখোমুখি হতে হয়েছিল এই যুগলকে। শুনতে হয়েছিল কটূ কথা।

সেই তিক্ত অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে দোলন বলেন, ‘ওই সময় পাপারাৎজিদের মুখ থেকে যেসব কথা শুনেছি, তা বোধ হয় কোনো প্রথম সারির নায়িকাকেও শুনতে হয়নি। রাস্তায় চলার সময় গাড়ির কাচ পর্যন্ত ইট মেরে ভেঙে দেয়া হয়েছিল।’

এত বাধা-বিপত্তির পরও সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা প্রসঙ্গে দোলন বলেন, ‘সততা। পরস্পরের প্রতি নির্ভরতা আর বিশ্বাস। দীপঙ্কর এত বড় অভিনেতা হওয়ার পরও আমার ওপর কিছু চাপিয়ে দেয়নি।’

  • সর্বশেষ - বিনোদন