সঠিকভাবে রাজপথের নেতৃত্ব দিতে না পারলে দায়িত্ব থেকে সরে যাবেন মহাসচিব এর উদ্দেশ্যে গয়েশ্বর

0
301

নিজস্ব প্রতিবেদক(মাস্টার বিডি):-বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার জন্য আন্দোলন করতে না পারলে দলের নেতাদের দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়া একজন আপসহীন নেত্রী।

তিনি কারো দয়া নিয়ে প্যারোলে মুক্তি নিবেন না। রাজপথে আন্দোলনের মাধ্যমেই বেগম জিয়াকে মুক্ত করা হবে। যারা (দলের নেতারা) বেগম জিয়ার মুক্তি আন্দোলন করতে পারবেন না, সংগঠনের দায়িত্ব পালন করতে পারবে না তারা আল্লাহর ওয়াস্তে দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ান।

কিন্তু আপসহীন নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য প্যারোলের কথা বলবেন না। প্যারোলের কথা বলে তাকে অসম্মান করা হয়। মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে জাতীয়তাবাদী যুবদলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, খালেদা জিয়াকে মুক্তির জন্য আমরা এখনো পর্যন্ত যৌক্তিক আন্দোলন করতে পারিনি। কেন পারিনি তা আপনাদেরকে খুঁজে বের করতে হবে। আমাদের দলের ভেতরে আন্তরিকতার অভাব আছে কিনা তা খুঁজতে হবে । তিনি বলেন, বিএনপিতে মীরজাফর নেই, তবে জাফর থাকতে পারে যারা গোপনে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে আশ্বস্ত করে যে বেগম খালেদা জিয়াকে প্যারোলে যাওয়ার জন্য রাজি করাবেন। কারা এই ব্যক্তি ধরা খেলে তাদের রক্ষা হবে না।

ঐক্যফ্রন্টের সমালোচনা করে বিএনপির অন্যতম এই শীর্ষ নেতা বলেন, আমরা জাতীয় নির্বাচনের সময় দেখেছি ওই জোটের কাছে খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়টি প্রাধান্য পায়নি পেয়েছে নির্বাচনে অংশগ্রহণ। তাদের কাছে নির্বাচনই বড় ছিল। এখন আমরা দেখছি খালেদা জিয়ার ব্যক্তিত্বকে নষ্ট করার জন্য প্যারোলে মুক্তির বিষয়ে একটা অংশ উঠেপড়ে লেগেছে।

যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নীরবের সভাপতিত্বে এবং সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নয়নের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ভাইস-চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোর্তাজুল করিম বাদরু, সাংগঠনিক সম্পাদক মামুন হাসান, মহানগর দক্ষিণের সভাপতি রফিকুল আলম মজনু, উত্তরের সভাপতি এসএম জাহাঙ্গীর, দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা শাহিন প্রমূখ।

Print Friendly, PDF & Email