ডেঙ্গু থেকে বাঁচতে লম্বা জামা-পায়জামা ও মোজা পরার পরামর্শ দিলেন: সাঈদ খোকন

0
132

নিজস্ব প্রতিবেদক(মাস্টার বিডি):-দেশকে ডেঙ্গুমুক্ত করতে আল্লাহর দরবারে দোয়া করতে আলেমদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন। তিনি বলেন, আল্লাহ মাফ করলেই দ্রুত শহর ডেঙ্গুমুক্ত হবে। রবিবার নগরভবনে মসজিদের খতিব ও ইমামদের সঙ্গে মতবিনিময় ও অ্যারোসল স্প্রে বিতরণে অনুষ্ঠানে এই পরামর্শ দেন মেয়র।

ডেঙ্গু হলে পেঁপে পাতার জুস খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া মেয়র খোকন এই অনুষ্ঠানে এডিসের আক্রমণ থেকে বাঁচতে লম্বা জামা-পায়জামা ও মোজা পরার পরামর্শও দেন।

মেয়র বলেন, ‘আপনারা যারা লম্বা প্যান্ট, পায়জামা পরেন, পাজামার সঙ্গে মোজা পরলে আমরা কিন্তু নিরাপদ থাকতে পারি। বাসায় যারা থাকবেন, তাদের লম্বা জামা পরতে বলবেন। এই ছোট ছোট সচেতনতা আমাদের উপকার করবে এবং ডেঙ্গু মসিবত থেকে রক্ষা করবে ইনশাল্লাহ।‘মসজিদে নামাজের আগে অ্যারোসল স্প্রে করতে পারেন। সামান্য সচেতনতা আমাদের সবাইকে নিরাপদে রাখতে পারে।’

চলতি বছর ডেঙ্গুর বিস্তার উদ্বেগ ছড়িয়েছে। প্রায় ২৫ হাজার রোগী এরই মধ্যে শনাক্ত হয়েছে। মারা গেছে প্রায় ৬০ জন। যদিও এই রোগের ব্যাপক বিস্তারের বিষয়টি শুরুর দিকে মানছিলেন না মেয়র খোকন। তবে সম্প্রতি আগের অবস্থান থেকে সরে এসে পরিস্থিতি জটিল বলে করছেন মেয়র। বলেছেন, তারা সবাই মিলে চেষ্টা করছেন পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের।

ঢাকা দক্ষিণের মেয়র বলেন, ‘আল্লাহ তায়ালা মাফ করলে দ্রুত ডেঙ্গুমুক্ত শহর নিশ্চিত করতে পারব। আগামী সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটিকে ডেঙ্গুমুক্ত করতে পারবো ইনশাল্লাহ।’এ কাজে ইমামরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারেন। তারা নিজ এলাকায় প্রতিটি মসজিদে ডেঙ্গু থেকে মুক্তির লক্ষ্যে দোয়া পাঠ করবেন। যেন এ শহর দ্রুত ডেঙ্গুমুক্ত হয়। কারণ, আল্লাহ ধৈর্যশীল ও নামাজিদের পছন্দ করেন। আমরা ধৈর্য ধরব ও নামাজের সঙ্গে আল্লাহর দরবারে সাহায্য প্রার্থনা করব। নিশ্চয় তিনি আমাদের মাফ করবেন।

ডেঙ্গু রোগে জনগণের সতর্কতা জরুরি বলেও উল্লেখ করেন মেয়র বলেন, ‘আমরা সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এগিয়ে যাচ্ছি। শিগগির আমরা দেখতে পারবো নতুন ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা কমে আসছে।’ডেঙ্গু মোকাবেলায় জনবল বাড়ানোর ঘোষণাও দেন মেয়র। বলেন, তারা বাড়ি বাড়ি গিয়ে সচেতনতা বাড়াতে কাজ করবেন।
তিনি বলেন, প্রতিদিন আমরা অন্তত সাতটি বাড়ি করে দক্ষিণের প্রায় তিন হাজার ৪৮০টি বাড়িতে লোক পাঠিয়ে ডেঙ্গুর লার্ভা নষ্ট করার কাজ করছি। ইতোমধ্যে হাজারো বাসা-বাড়ি থেকে ডেঙ্গু বা এডিস মশার লার্ভা নষ্ট করা হয়েছে। ডেঙ্গু রোগীদের বিনামূল্যে ওষুধ ও চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। গুরুতর অসুস্থ রোগীকে দ্রুত হাসপাতালে ভর্তির ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

ঈদুল আযহায় কোরবানির বর্জ্যে ডেঙ্গু যেন আবার ছড়িয়ে না পড়ে, সেদিকেও সবাইকে সতর্ক থাকার আহবান জানান মেয়র। বর্জ্য ব্যবস্থাপনা নিয়ে খুতবার পর এক মিনিট বয়ান দিতেও ইমামদের প্রতি আহবান জানান তিনি।

Print Friendly, PDF & Email