আ.লীগ নেতার কর্মচারীর ভল্টে শুধু হাজার টাকার বান্ডিল

0
59

নিজস্ব প্রতিবেদক(মাস্টার বিডি):-র‌্যাবের অভিযানে পাওয়া গেছে ভল্ট। সেখানে শুধু টাকা আর টাকা। এটি কোনো ব্যাংকের ভল্ট না। আওয়ামী লীগের এক নেতার বাসার ভল্ট। বাসাটি ঢাকা মহানগরের গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি এনামুল হকের কর্মচারী আবুল কালাম আজাদের।

মঙ্গলবার রাজধানীর নারিন্দার লালমোহন রোডের ৮৩/১ আবুল কালাম আজাদের বাসায় এ অভিযান চালানো হয়। ওই বাসাতে অভিযান চালাতে গিয়ে ভল্টের সন্ধান পেয়েছে র‌্যাব। ভল্টে এক হাজার টাকার অসংখ্য নোট। তবে টাকাগুলো এখনও গোনা সম্ভব হয়নি। টাকা ছাড়াও পাওয়া গেছে অস্ত্র। তার আগে গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি এনামুল হক ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রুপন ভূঁইয়ার বাসা থেকে নগদ ১ কোটি ৫ লাখ টাকা ও বিপুল পরিমান স্বর্ণ উদ্ধার করেছে র‌্যাব। এবার তারই কর্মচারী আবুল কালামের বাসায় পাওয়া গেছে বিপুল টাকা।

এর আগে গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এনামুল হক ও সাধারণ সম্পাদক রূপন ভূঁইয়ার বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। সেখান থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা ও স্বর্ণ জব্দ করা হয়।

সোমবার মধ্যরাতের পর তাদের বাড়িতে অবস্থান নেয় র‌্যাব। আজ (মঙ্গলবার) অভিযানে তিনটা ভল্ট খোলা হয়। এখান থেকে নগদ এক কোটি পাঁচ লাখ টাকা ও আট কেজি (৭২০ ভরি) স্বর্ণ পাওয়া যায়।

মঙ্গলবার দুপুরে এক ব্রিফিংয়ে র‌্যাব-৩ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল শাফিউল্লাহ বুলবুল বলেন, তারা দুজনই ক্যাসিনোর লাভের টাকা বাসায় নিয়ে রাখতেন। টাকা রাখলে বেশি জায়গা লাগে তাই তারা স্বর্ণ কিনে সেগুলো ভল্টে রাখতেন। এছাড়া তাদের বাসা থেকে পাঁচটি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমাদের কাছে গোয়েন্দা তথ্য ছিল, কয়েক দিন আগে এখানকার ইংলিশ রোডে পাঁচটি ভল্ট বানানোর অর্ডার দেন এনামুল হক ও রূপন ভূঁইয়া। সেই সূত্রে জানতে পারি তাদের বাসায় তিনটা ভল্ট আছে।

তিনি বলেন, আমাদের কাছে আরও তথ্য ছিল, এনামুল হক ওরফে এনু ও রূপন ভূঁইয়া ক্যাসিনোর শেয়ারহোল্ডার। ক্যাসিনোর লাভের টাকা তারা বাসায় নিয়ে রাখতেন। নগদ টাকা রাখলে অনেক জায়গার প্রয়োজন হয় তাই তারা টাকা দিয়ে স্বর্ণ কিনে রাখতেন।

 

Print Friendly, PDF & Email